আল জামি'আতুল আরাবিয়া দারুল হিদায়াহ-পোরশা

বরাবর,
ফতোয়া বিভাগ,আল-জামিয়াতুল আরাবিয়া দারুল হিদায়া,পোরশা,নওগাঁ।
বিষয়: দান কী এবং দান করা কেনো প্রয়োজন ?
প্রশ্ন: আসসালামু আলাইকুম ওরাহ.হুজুর আমি জানতে চাই,দান কাকে বলে এবং দান কেনো করতে হবে ? দানের প্রয়োজনীয়তা কী ইসলাম দানের ব্যাপারে কি বলে বিস্তারিত জানিয়ে বাধিত করবেন । শুকরিয়া!
নিবেদক
মুহাঃ জোবায়ের হোসাইন
بسم الله الرحمن الرحيم،حامدا و مصليا و مسلما-
সমাধান: দান বলা হয়, আল্লাহ তা‘য়ালার নৈকট্য অর্জনের লক্ষ্যে সৎ কাজে যেই মাল বা অর্থ ব্যয় করা হয়,তাকেই দান বলে। দানের প্রয়োজনীয়তা হল,দান-সদকা মুমিন জীবনের অত্যন্ত ফযীলতময় ও গুরুত্বপূর্ণ একটি অনুষঙ্গ। পবিত্র কুরআন ও হাদীসে দান-সদকার অনেক ফযীলতের কথা বর্ণিত হয়েছে । দান করলে বিপদাপদ দূর হয়, দান আল্লাহর ক্রোধকে নিভিয়ে দেয়।(তিরমিযি শরীফ- হাদীস নং- ৬৬১)।
দানের দ্বারায় গুনাহসমূহ দূর করে দেওয়া হয়। দানের প্রতিদানকে আল্লাহ তা‘য়ালা সাতশ গুণ পর্যন্ত বাড়িয়ে দেন,এমনকি কাউকে আরও বেশি পরিমাণে নেকি দিয়ে থাকেন। (সূরা-বাকারা, আয়াত:২৬১) এ দান-সদকা কেবল একটি গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত বিষয়টি এমনই নয়,বরং পবিত্র কুরআনে কারীমে খাঁটি ও যথার্থ মুমিনের পরিচয় দিতে গিয়ে মহান রাব্বুুল আলামীন এ দান সদকার কথাও উল্লেখ করেছেন।
অনুবাদ: নিঃসন্দেহে মুমিন তো তারাই, আল্লাহর নাম উচ্চারিত হলে যাদের অন্তর ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে পড়ে,যখন তা তাদের নিকট তার আয়াতসমূহ তিলাওয়াত করা হয়, তখন তা তাদের ঈমানকে বাড়িয়ে দেয় এবং তারা তাদের প্রভুর ওপর ভরসা করে। যথারীতি নামায আদায় করে এবং আমি তাদেরকে যে রিযিক দিয়েছি,তা থেকে তারা ব্যয় করে এরাই হচ্ছে প্রকৃত মুমিন। তাদের জন্য তাদের প্রভুর নিকট রয়েছে সুউচ্চ মর্যাদা, ক্ষমা ও সম্মানজনক রিযিক।(সূরা-আনফাল-২,৪)
আরও বলা হয়েছে,যারা আল্লাহর পথে নিজেদের অর্থ ব্যয় করে তাদের দৃষ্টান্ত এ রকম যেমন একটি শস্য দানা সাতটি শীস উদ্গত করে এবং প্রতিটি শীসে একশ দানা জন্মায়। আর আল্লাহ যার জন্য ইচ্ছা করেন (সওয়াবে) কয়েকগুণ বৃদ্ধি করে দেন। আল্লাহ প্রাচুর্যময় এবং সর্বজ্ঞ।(সূরা-বাকারা:২৬১)
হাদীসে বর্ণিত হয়েছে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ওপরের হাত নিচের হাত অপেক্ষা উত্তম। অর্থাৎ দাতা গ্রহীতা অপেক্ষা শ্রেয়। দান দাতার ইহকালীন ও পরকালীন ফযীলত,সম্মান ও গৌরব বৃদ্ধি করে। দান,সদকা ,খয়রাত স্বসম্মানে পবিত্র মনে প্রাপকের হাতে পৌঁছে দিতে হয়। আত্মীয়-স্বজনদের মাঝে দান করার ফযীলত আরো বেশি। বর্ণিত রয়েছে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, একটি দিনার তুমি আল্লাহর রাস্তায় ব্যয় করেছ, একটি দিনার তুমি দাসমুক্তির জন্য ব্যয় করেছ, একটি দিনার তুমি কোন মিসকিনকে সদকা করেছ, আরেকটি দিনার তুমি তোমার পরিবার-পরিজনের জন্য ব্যয় করেছ, এসবের মধ্যে সর্বাধিক প্রতিদান সেটাতেই পাওয়া যাবে, যা তুমি তোমার পরিবার-পরিজনের জন্য ব্যয় করেছ।(সহীহ মুসলিম-হাদীস ৯৯৮)
মোট কথা, দান-সদকার ব্যাপারে অসংখ্য আয়াত ও হাদীসে তার গুরুত্ব, প্রয়োজনীয়তা ও অনেক ফযীলতের কথা বর্ণনা রয়েছে, তাই এই দান-সদকা নিজে বেশি বেশি করা এবং অপরকেও তার প্রতি উৎসাহ প্রদান করা।

” قوله تعالى”مثل الذين ينفقون أموالهم في سبيل الله كمثل حبة انبتت سبع سنابل في كل سنبلة مائة حبة‘ والله يضعف لمن يشاء والله واسع عليم‘ الذين ينفقون أموالهم في سبيل الله ثم لا يتبعون ما انفقوا منا ولا اذىٰ‘ لهم أجرهم عند ربهم ولا خوف عليهم ولا هم يحزنون.(سورة البقرة ‘261-262)—————————————————–

و أخرج الإمام البخاري رح    في “صحيحه”( برقم 1416) عن حذيفة رض قال قال عمر بن الخطاب رض أيكم يحفظ حديث   رسول الله ﷺ عن فتنة قال قلت أنا احفظه كما قال قال إنك عليه لجرئ فكيف قال قلت فنمة الرجل في أهله و ولده  و جاره تكفرها  الصلوة والصدقة و المعروف.———————————————————————–

و في” الدر المختار”(3/361) وسميت صدقة وهي العطية التي يراد بها المثوبة من الله تعالى لأنها تظهر صدقة الرجل كالصدقة يظهر صدق الرجل في المرأة.—————————————————————

و في ” الموسوعة الفقهية الكويتية”(26/323) الصدقة بفتح الدال لغة: ما يعطى على وجه التقرب إلى الله تعالى على وجه المكرم و يشمل هذا المعنى الذكاة و صدقة الفطر‘ والاصطلاحي تمليك في الحياة بغير عوض على وجه القربة إلى الله تعالى.——————-

وفي أيضا (26/324)إن أداء الصدقة من باب إعانة الضعيف وإغاثة اللهيف وإقدار العاجز وتقبويته على أداء ما افترض الله عليه من التوحيد والعبادات‘ والصدقة شكر لله تعالى على نعمه وهي دليل لصحة إيمان مؤديها وتصديقه ولهذا سميت صدقة.——————-

و في “فتاوى عباد الرحمان”(4/69) جواب:صدقہ کا لغوی معنی خیرات ہے (بحوالئے مصباح اللغات ، المنجد، فیروز اللغات ) اصطلاح فقہ میں وہ مال ہے جو اللہ تعالی کی خوشنودی اور ثواب کی نیت سے اللہ تعالی کی راہ میں دیا جائے————————————-

وفي”آپ کے مسائل اور ان کا حل”(3/332) جواب:صدقہ کے معنی ہیں اللہ تعالی کی رضا وخوشنودی کیلئے خیر کے کاموں میں مال خرچ کرنا ، صدقہ کی قرآن کریم اور احادیث شریف میں بڑی فضیلت اور ترغیب آئ ہے مصائف اور تکالف کے رفع کرنے میں صدقہ بہت مؤثر چیز ہے ،اللہ تعالی کی راستہ میں جو مال بھی خرچ کیا جائے وہ صدقہ ہے، انتهى، والله أعلم بالصواب———————————-

Scroll to Top