আল জামি'আতুল আরাবিয়া দারুল হিদায়াহ-পোরশা

খাওয়ার সময় সালাম দেওয়া ও কথা বলা প্রসঙ্গে

শেয়ার করুন !!

বরাবর,
ফতোয়া বিভাগ, আল-জামিয়াতুল আরাবিয়া দারুল হিদায়া,পোরশা,নওগাঁ।
বিষয়:খাবার খাওয়ার সময় সালাম দেওয়া ও নেওয়া এবং কথা বলা প্রসঙ্গে।
প্রশ্ন: আমরা বলে থাকি খাবার খাওয়ার সময় সালাম দেওয়া অথবা কথা বলা জায়েজ নেই। এটা কতটুকু সঠিক আর এ বিষয়ে ইসলাম কি বলে?

بسم الله الرحمن الرحيم،حامدا و مصليا و مسلما-
সমাধান : খানা খাওয়ার সময় মুখে খাদ্যের লোকমা থাকা অবস্থায় সালাম দেওয়া মাকরুহ। কেননা মুখে খানা থাকা অবস্থায় সালামের জবাব দিতে গেলে গলায় খাদ্য আটকে গিয়ে বা অন্য কোনভাবে তার কষ্ট হতে পারে। তবে খানা খাওয়ার সময় মুখে যদি খাদ্যের লোকমা না থাকে তাহলে সে অবস্থায় সালাম দিতে কোন অসুবিধা নেই। আর খানা খাওয়ার সময় কথা বলা জায়েয বরং ভালো কথা বলাই উত্তম।

নিবেদক
মোঃ মোস্তফা শাহ

الاحالة الشرعية على المطلوب

في”ردالمحتار” (2/452) يكره السلام على العاجز عن الجواب حقيقة كالمشغول بالأكل أو الاستفراغ أو شرعا كالمشغول بالصلاة و قراءة القران و لو سلم لا ستحق الجواب.

وفی” احسن الفتاوی”(8/109) شامیہ میں کراہت سکوت کی علت تشبہ     بالمجوس لکھی  ہے ،مگر  تغیر و مکان کی وجہ سے احکام تشبہ بدلے رہتے ہیں ، اس زمانہ میں             تشبہ   نہیں ، لہذا کراہت نہ  ہو گی ، البتہ بہتر یہی ہے کہ جائز تفریحی گفتگو جاری   رہے                                                                                                                   ر——————————————————————————————————————————————–

و فی” امداد الفتاوی”(9/454) خلاصہ ترجمہ جواب : فقہاء کرام نے کھانے والے کو سلام کرنے کے مکروہ  ہونے کی علت اس  کا جواب دینے سے عاجز ہو   نا  لکھا ہے اور  میرے نزدیک اس کی دوسری علت اس کے تشویش میں مبتلا ہونے یا   لقمہ کے حلق میں اٹک جانے کا احتمال ہے پس جس جگہ یہ دونو ں علتیں نہ ہوں وہاں کراہت بھی نہ ہوگی

ফতোয়া প্রদান করেছেনঃ
মুফতি আব্দুল আলিম সাহেব (দা.বা.)
নায়েবে মুফতী-ফতোয়া বিভাগ
আল জামিয়া আল আরাবিয়া দারুল হিদায়াহ-পোরশা, নওগাঁ ।


শেয়ার করুন !!

উন্নয়ন বিভাগ - জামি'আ

Scroll to Top